শিবলী সাদিক

শিবলী সাদিক

I am an environmental specialist by academic training and profession but a photographer by hobby. I love to travel places to places with my camera. Sometimes I sleeplessly travel to shoot sunrise and forget to press the shutter while watching nature's beauty.

টিউলিপে যখন আনন্দের হাতছানি

জাপানের Akashi Strait Park এর টিউলিপ

জাপান কেন সূর্যোদয়ের দেশ

জাপানের আরেক নাম হচ্ছে নিপ্পন, আর এই নিপ্পন নামের অর্থই হচ্ছে সূর্যোদয়ের দেশ। জানিনা এই সূর্যোদয় অন্য দেশ থেকে বা আমার নিজ দেশ থেকে অন্যরকম কিনা। নিজ দেশের সূর্যোদয়ের এইভাবে দেখার বা তোলার সুযোগ হয়নি কখনও, সৌভাগ্যক্রমে সুযোগ হয়েছিলে জাপানের কিছু কিছু বিশেষ জায়গায় এবং তাইওয়ানে সূর্যোদয় দেখার।

হাজার বছরের দাড়প্রান্তে দাঁড়িয়ে এখনও অম্লান জাপানের অন্যতম বৌদ্ধ মন্দির বিয়োদো-ইন

১০৫২ সালে স্থাপিত অমিতাভ বুদ্ধের এই জাপানিজ মন্দির এখন পর্যন্ত জাপানিদের কাছে শীর্ষ ধর্মীয় স্থান গুলোর একটি হিসেবে স্বীকৃত। ধর্মীয় এবং ঐতিহাসিক গুরুত্ব ছারাও এই মন্দিরের ল্যান্ডস্কেপ, বাগান এবং সর্বোপরি প্রাকৃতিক পরিবেশ সবার মনেকেই শান্ত করে। মন্দিরের পিছনের খোলা দিগন্ত আর এর ছোট লেক এ ফনিক্স হল এর প্রতিবিম্ব এবং বিশেষ করে সূর্যাস্তের সময়ের রক্ত লাল আকাশ সবাইকে চুম্বকের মত বার বার টেনে আনে।

পূর্বপুরুষদের স্মরণ করার জাপান সংস্কৃতিঃ তোরো-নাগাশি (কাগজের লন্ঠন নদীতে ভাসানো)

জাপানিজ শব্দ তোরো মানে হচ্ছে কাগজের লন্ঠন, এবং নাগাশি মানে বলা যায় ভাসিয়ে দেয়া।

প্রযুক্তির বিস্ময়য়ের দেশে কুঁড়েঘরের গ্রাম (শেষ পর্ব)

কিয়োতো শহর এর উত্তরপূর্ব দিকে সারি সারি পাহাড়-বন পেরিয়ে ছোট এক শহর নান্তান। আর এই নান্তান শহরের পাহারের কোল ঘেঁসে গরে গরে ওঠা ৫০/৬০ ঘরের ছোট্ট গ্রাম উত্তর মিয়ামা (মিয়ামা-চো-কিতা)। গ্রামের ঠিক পিঠের উপর হাজার ফুট উচ্চতার বিশাল পাহাড়

প্রযুক্তির বিস্ময়য়ের দেশে কুঁড়েঘরের গ্রাম (পর্ব ১)

গ্রামটার বিশেষত্ব হচ্ছে এখানে এখনও প্রাচীন জাপানের গ্রামীন পরিবেশ ও জীবনযাত্রার দেখা মিলে। ১৯৩০ সালেও কিয়োতো থেকে ৬০ কিমি দূরত্বের এই গ্রামে যাওয়ার একমাত্র পথ ছিলো পাহাড়-বন এর মাঝ দিয়ে ভাল্লুক এর সাথে যুদ্ধ করে পায়ে হাঁটার ট্রেইল

সাকুরা, জাপানিজ দের সংস্কৃতি, অহংকার, উৎসাহ, উদ্দীপণা

সাকুরা সিজনের আরেকটা মনকাড়া সৌন্দর্য হচ্ছে, সাকুরা বৃষ্টি। সাকুরা খুবই ক্ষণস্থায়ী, এক সপ্তাহের মধ্যেই সব ফুলে ঝরে পরে যায়। আর যদি বৃষ্টি হয় তাহলে তো কথাই নেই, আরো আগেই পরে যায়। তবে তখন এর সৌন্দর্য যেন আরো বেড়ে যায়। জাপানিজরা তখন বলে সাকুরা বৃষ্টি।

আলোচিত পোস্ট


বজ্রনিনাদী জলরাশির ইতিকথা

বজ্রনিনাদী জলরাশির ইতিকথা

শনিবার, জানুয়ারী ১৯, ২০১৯

লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৭, ২০১৯

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৩, ২০১৯