আশিক সরওয়ার

আশিক সরওয়ার

ভ্রমণ , ঘুরা ঘুরি , 

সোনালী সপ্নের সোনার চর (প্রথম পর্বঃ তাসরিফনামা)

মেঘনায় ঢোকার পর হাল্কা রোলিং টের পেলাম৷ বেশ মায়ের মমতা মিশানো দুলুনিতে আমায় ঘুম পাড়িয়ে দিল। ঘুম ভাংগলো ভয়াবহ রোলিং আর তাসরিফের বডির কাপাকাপিতে। উপকূলে এই রকম পকেট মাস্টার ডায়নামাইট চালানোর সাহস দেখে আমি অভিভূত হয়ে গেলাম।

সাগর কন্যা কুয়াকাটা (শেষ পর্বঃ ঘরে ফেরার পালা)

প্রকৃতি যেন খুলে দিয়েছে তার লাজের দুয়ার৷ বন বিভাগের নিরলস পরিশ্রমে গড়ে তোলা সবুজ বৃক্ষরাজির সারির মাঝে বিমোহিত হয়ে দেখছি উম্মত্ত বঙ্গোপসাগর রুপ৷

সাগর কন্যা কুয়াকাটা (দ্বিতীয় পর্বঃ ফাতরার বন)

ছোট এই সৈকতে নেই কোন অভিজাত্য বা চাকচিক্য৷ এর বদলে দখল করে আছে এক রাশ ঘোর লাগামো মায়া৷

সাগর কন্যা কুয়াকাটা (প্রথম পর্বঃ দূরন্ত যাত্রা)

সাগরের মাতালী হাওয়ায় সন্ধ্যায় সাগর পাড়ে মাছের পসরা সাজিয়ে বসেছে ভ্রাম্যমাণ দোকানদার৷ পর্যটকে সিজনে এরা ভুইফোড়ের মত উদয় হয়৷ বাতাসে মাছের ম ম গন্ধে জিভে জল এনে দেয়৷

প্রসঙ্গঃ মেইল ট্রেন

এখন অন লাইন ট্রাভেল গ্রুপের কল্যানে মেইল ট্রেনের বগী দখল হচ্ছে, জায়গা পাচ্ছে না খেটে খাওয়া শ্রমজীবি মানুষরা। বগী দখল করেও ক্ষেমা দিচ্ছে না তারা। সারা রাত হই চই করে পাশের যাত্রীদের করছে পেরেশান।

লখিন্দর ও বেহুলা : এক কালজয়ী উপখ্যান ( বেহুলা পর্ব)

সে যুগ থেকে আজ পর্যন্ত লোক মুখে মুখে ঘুরে বেড়াচ্ছে লখিন্দর বেহুলার প্রেম কাহিনী। এই লোক কাহিনী এত জনপ্রিয় ছিল তার উপর নির্ভর করে ১৯৬৯ সালে জহির রায়হান নির্মাণ করেন বাংলা চলচিত্র "বেহুলা"।

লখিন্দর ও বেহুলা : এক কালজয়ী উপাখ্যান (চাঁদ সওদাগর পর্ব)

প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনার পিছের ইতিহাস/মিথ না জেনে দেখতে যাওয়া আর আপনার ঘরের পিছে সুন্দর একটা বাড়ী দেখতে যাওয়া একই কথা। মিথ কিন্তু ইতিহাসের অংশ নয়। তবে এই মিথ গুলো আপনার ভ্রমণ কে করে তুলে আরও আনন্দময়।

পানিতে টইটুম্বুর হালতি বিল

নাটোরের চলনবিলের মধ্যেস্থ কয়েকটি ছোট ছোট বিল আছে।এগুলো হচ্ছে, হালতিবিল, বড়বিল, খলিশা গাড়ী বিল, ধনাইর বিল, ছয় আনি বিল, বাইডার বিল, সাধুগাড়ী বিল, মহিষা হালট। আর ও ১৮টা খাল আছে যাহা চলনবিলের অংশ।

পদব্রজে ঢাকা- 'ঢাকা ওয়াক'

প্রাক্তন সিনেমার কথা মনে আছে? ওইযে ট্যুর গাইড প্রসেনজিত একদল নারী পুরুষ নিয়ে কোলকাতার অলিগলিতে হেটেহেটে কোলকাতা চেনায়, কোলকাতার ঐতিহ্য শোনায়? তা কলকাতার মত অত পুরনো না হলেও ঢাকার ঐতিহ্য ও কিছু কম নয়, আর হেটে হেটে দেখার জায়গাও ঢাকায় কম নয়।

দারস বাড়ী মসজিদ

বাংলাদেশের উত্তরের জেলা চাপাইনবাবগঞ্জের ছোট সোনা মসজিদ ও ভারত-বাংলাদেশ চেকপোস্টের মাঝামাঝি দারস বাড়ী মসজিদের অবস্থান।

হাটিকুমরুল নবরত্ন মন্দির

হাটিকুমরুলের নবরত্ন মন্দির দেশের সর্ববৃহৎ নবরত্ন মন্দির। এই মন্দিরে কোন শিলালিপি পাওয়া যায় নেই। তবে ধরা হয় অনুমানিক ১৭ শতকে নবাব মুর্শিদকুলির আমলে মন্দিরটি তৈরি হয়। দেখতে অনেকটা দিনাজপুরের কান্তজিউ মন্দিরের মত।

রকেট এক্সপ্রেস : দর্শনা টু চুয়াডাংগা

রকেট এক্সপ্রেস নাম শুনলেই মনে হয় রকেটের গতিতে ট্রেন চলবে। বাস্তব তার উলটা। দর্শনার কেরু এন্ড কোং দেখে যখন আশে পাশে কি আছে খুজতেছি তখন এক হোটেলয়ালা মামা বয়ান করেন দর্শনা হল্ট নিয়ে।

রুপবান মুড়া, কুমিল্লা

প্রত্মতত্ত্ব নিয়ে আগ্রহীদের জন্য কুমিল্লা হতে পারে একটা আর্দশ ডে আউটের জায়গা। কুমিল্লার ময়নামতি ভ্রমণ প্রিয়দের জন্য এক অসাধারন স্থান। ঐতিহাসিক ভাবে বিখ্যাত এই লালমাই পাহাড়ের আনাচে কানাচে লুকিয়ে আছে বৌদ্ধ সভ্যতার নির্দশন।

কুষ্টিয়ার ঐতিহ্যবাহী মোহিনী মিল

ভারতের প্রখ্যাত সুতা ব্যবসায়ী মোহিনী মোহন চক্রবর্তী ১৯০৮ সালে মিলপাড়া এলাকায় ১০০ একর জায়গার ওপর নির্মাণ করেন মোহিনী মিল। তৎকালীন ভারত বর্ষে আধুনিক সুতার কলের মধ্যে মোহিনী মিল ছিল অন্যতম।

আলোচিত পোস্ট


লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৭, ২০১৯

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৩, ২০১৯