মৃত্যুকে জয় করতে কে না চায়? সবাই মানবের মাঝে বেঁচে থাকতে চায় বহু- বহুদিন। কিন্তু হায়, জীবন নশ্বর! এই নশ্বর জীবনের পল-অনুপল ও গুরুত্বপূর্ণ, আর দীর্ঘ কয়েকটিবছর অতিরিক্ত সময় পাওয়া তো সাতরাজার ধন পাওয়ার থেকেও মূল্যবান। স্বল্পায়ু এই পৃথিবীতে কিছু দেশ আছে যেখানে কিনা মানুষ বাচে শতবছর। শতবছর বেঁচে থাকা স্বাভাবিক ঘটনা সেখানে। সেই দারুণ সৌভাগ্যবান দেশগুলোর গল্প আর তাদের দীর্ঘজীবন প্রাপ্তির পেছনের রহস্য নিয়েই আমাদের আজকের আয়োজন! 

৫। ইজরায়েলঃ

ইজরায়েলের খাদ্যাভ্যাসে রয়েছে সুস্পষ্ট ভূমধ্যসাগরীয় প্রভাব, সেইসাথে তাদের পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধ ও খুবই শক্তিশালী। আর এই বিষয়গুলোই অবদান রাখে তাদের দীর্ঘ জীবন প্রাপ্তিতে।

আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এখানে আনন্দবাদী তেল আভিভ শহর থাকা স্বত্ত্বেও ইজরায়েলে মদ্যপানের মাত্রা পুরো বিশ্বের মধ্যে সর্বনিম্ন। স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন তাদেরকে এনে দিয়েছে এই তালিকার পাঁচ নাম্বারে।

৪। জাপানঃ

জাপানে দীর্ঘজীবনের মূলমন্ত্র সংক্ষেপেই বলে দেয়া যায়- বিশুদ্ধ খাবার আর কর্মচঞ্চল জীবনব্যবস্থা। এখানকার ওকিনাওয়া দ্বীপে রয়েছে অনেক শতবর্ষী মানুষ, এই দ্বীপ কে ডাকা হয় ‘ল্যান্ড অফ ইমমর্টালস’ বলে। এখানে লোকেরা স্বাস্থ্যকর জীবন যাপনের পাশাপাশি অনুশীলন করে ‘ইকিগাই’ নামের এক বিশেষ ধরণের ব্যায়াম।

৩। সাউথ কোরিয়াঃ

সাউথ কোরিয়ান মহিলারাই বিশ্ব প্রথম যাদের রয়েছে ৯০ বছরের উপরে গড় আয়ু। গবেষকরা এর কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছেন। গবেষণায় প্রমাণিত কোরিয়ান রা মেডিকেল সায়েন্সের উন্নতিতে প্রচুর টাকা বিনিয়োগ করে, স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন করে, তাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় থাকে সুষম খাবার আর প্রচুর পরিমাণে নিজেদের উৎপাদিত বিশুদ্ধ সবুজ সবজি।

২। সুইজারল্যান্ডঃ

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করা সুইজারল্যান্ডের আছে আরো উন্নত ও স্বাস্থ্যকর জীবনব্যবস্থা। সেইসাথে এই রাস্ট্রের লোকেরা সুখী ও উন্নত জীবন যাপনে অভ্যস্ত। তাদের খাদ্যাভ্যাস স্বাস্থ্যসম্মত, খাদ্যতালিকায় আছে চকলেট ও যা কিনা রক্তচাপজনিত সমস্যা কমায়। এছাড়া ওইসিডি (OECD) এক গবেষণায় প্রমান করে সুইজারল্যান্ডের বিশুদ্ধতম পানি ও প্রভাব রাখে তাদের দীর্ঘজীবনে।

১। ইতালিঃ

ইতালির জীবন মানেই নিজের জন্য পর্যাপ্ত অবসর সময়, দারুণ পারিবারিক বন্ধন, ঘনঘন হাটাহাটি আর প্রচুর সূর্যালোক! এখানকার সার্ডিনিয়া দ্বীপের অধিবাসীদের মধ্যে পাওয়া যায় এক বিরল জিনগত বৈশিষ্ট্য- তাদের জিনে উপস্থিত মার্কার-M26 এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে বাহকের দীর্ঘজীবন প্রাপ্তিতে।

তথ্যসূত্র ও ছবি- nationalgeographic.com