আরব সাগরের কোল ঘেষে বেড়ে ওঠা ভারতের এই জনপদ কে বলা হয়  'ঈশ্বরের নিজের দেশ'- 'gods own country'  

একদিকে কেরালার দৃষ্টিনন্দন সমুদ্রসৈকত আর পার্বত্য স্টেশনের অপুর্ব সংমিশ্রন, অপরদিকে মহিমান্বিত আরব সাগরের পশ্চিম কোলে বেড়ে ওঠা নিবিড় অরণ্য ও প্রাণীকুল, সেইসাথে আছে এখানকার মানুষের কসমোপলিটান লাইফস্টাইল- সবমিলিয়ে এ জায়গা সত্যিই অসাধারণ কিছু!  

আপনি যদি আপনার অবসর সময়ে একটি উপভোগপূর্ণ ভ্রমনে যেতে চান তাহলে অবশ্যই কেরালা অধিক প্রাধান্য পাবে তার অনাবিষ্কৃত সমুদ্রসৈকত এবং ভিন্ন স্বাদযুক্ত খেজুর ও লুকায়িত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য।  কেরালার শীর্ষ সৈকতগুলো এমন যে আপনি যদি সেখানে ঘুরতে যান আপনার অন্ততপক্ষে এতটুকু মনে হবে না যে সময়টা বৃথা গেল।

প্রাকৃতিক নজরকাড়া সৌন্দর্য্যের পাশাপাশি এই সৈকতে আপনার অপেক্ষায় থাকবে অসাধারণ জিভে জল আনা সব সি-ফুড এর সমাহার, যা নিসঃন্দেহে আপনার জিভের পাশাপাশি মনের জন্যও একটা ট্রিট। 

যদিও কেরালার বীচ গুলো অতটাও বিখ্যাত নয় সামুদ্রিক এডভেঞ্চার এক্টিভিটিস এর জন্য, কিন্তু তারপর ও পাবেন ডাইভিং ও স্নরকেলিং করার সুযোগ। সমুদ্র থেকে উঠে, ক্যানাল গুলোতে করতে পারেন কাঠের নৌকায় ভ্রমণ, যা আপনার ধারণায় এনে দেবে কেরালার জীবন সম্পর্কে ভিন্নমাত্রা।  

দেখেনিন কেরালার শীর্ষ ৫ টি সমুদ্রসৈকতের আলাপন, জেনে নিন কেন তারা আলাদা আলাদা সৌন্দর্যমণ্ডিত বৈশিষ্ট্যে স্বমুজ্জ্বল।

 

৫। কপিল সৈকত  (Kappil Beach)  

ছবি-waytoindia.comছবি-waytoindia.com

 

আপনার ভ্রমনের উদ্দেশ্য যদি হয়ে থাকে একান্ত নিজেকে কিছু সময় দেওয়া, আর আপনি যদি একটি নিরিবিলি, শান্ত পরিবেশ খোজ করেন তবে নিঃসন্দেহে কেরালার কপিল সমুদ্রসৈকত আপনার পছন্দের অন্যতম দাবিদার। কেননা কপিল সমুদ্রসৈকত এখনো পর্যন্ত আধুনিকতা ও বাণিজ্যিকতার প্রভাব থেকে মুক্ত। এই সমুদ্রসৈকতটি আপনার নির্জনে থাকার জন্য পছন্দের তালিকায় অন্যতম স্থান দখল করতে পারে তার কারন হিসেবে বলব এর সোনালী বালির তট, নীল আকাশের সাথে নীল সমুদ্রের অবাক করা সংমিশ্রণ, নারিকেল গাছ দিয়ে ঘেরা অপূর্ব প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, মানানসই আবহাওয়া এবং একটি প্রশান্তিকর পরিবেশের মিলনায়তন।

 

৪। সিক্রেট সৈকত  (Secret Beach) 

ছবি- waytoindia.comছবি- waytoindia.com

 

এই সমুদ্রসৈকতটির অবস্থান আলেপ্পির একটি গ্রামের পাশে, যেখানে জেলেদের বসবাস। সমুদ্রসৈকতটির প্রশান্ত পরিবেশ আপনাকে এমন একটি সময়ে নিয়ে যাবে যেখানে শুধুই শান্তি বিরাজমান। সেখানে আপনি একটি শান্ত পরিবেশ উপভোগ করতে পারবেন এবং সমুদ্রের পাড়ে বসে মনোমুগ্ধকর সূর্যাস্ত দেখতে পারবেন যেখানে দাঁড়িয়ে আপনার মনে হবে সূর্য হয়ত সমুদ্রের জলে ডুবে যাচ্ছে। তাছাড়াও সমুদ্রসৈকতটির সুবর্ণ বালি, অচেনা বিভিন্ন গাছপালা, সমুদ্রের মনমাতানো ঢেউ আপনাকে কখনো এই ভ্রমনটিকে ভুলতে দিবে না।

 

৩। সমুদ্র বীচ (Samudra Beach)  

ছবি- Kerala Tourismছবি- Kerala Tourism

 

ত্রিভানদ্রাম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং রেলওয়ে স্টেশন থেকে মাত্র ১১ কি.মি. দূরে এই সৈকত টি অবস্থিত। এই সমুদ্রসৈকতটি তিরুভনন্তপুরম এর কোভালাম এ অবস্থিত। এই সমুদ্রসৈকতটি আপনাকে একটি প্রশান্ত পরিবেশের সাথে সূর্য এবং সমুদ্রের একটি দৃষ্টিনন্দন দৃশ্য উপহার দিবে। সমুদ্রসৈকতটিতে আপনি খুব স্মরণীয় একটি সুখকর সময় কাটাতে পারেন, তাছাড়াও আপনার মনে হতে পারে সেখানকার মৃদু-মন্দ বাতাস আপনার সমস্ত শরীর ছুঁয়ে দিচ্ছে।

 

২। পুভার সৈকত (Poovar Beach) 

ছবি- waytoindia.comছবি- waytoindia.com

 

এই সমুদ্রসৈকতটির অবস্থান কেরালার কন্নুর জেলায়। এই সৈকত আপনাকে এক ঝলকে শত বছর পিছনে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে, আপনি উপভোগ করতে পারবেন আনকোরা প্রকৃতির মায়া। ।  এর পান্না সবুজ রঙা জলের সমুদ্র, ঘন নারিকেল আর পাম বিথী পুভার কে আপনার স্মৃতিতে চির স্মরণীয় করে রাখবে।

সেখানে গেলে আপনার মনে হতে পারে পুরনো পৃথিবীর প্রাচীন কোন সৈকতের তীরে বসে আছেন। আপনার গন্তব্য যদি হয়ে থাকে নিরিবিলি পরিবেশ তবে অবশ্যই এই সমুদ্রসৈকতটি কেরালার শীর্ষ সমুদ্রসৈকতগুলোর মধ্যে অন্যতম স্থান দাবী করে।

 

১।মুঝাপ্পিলাংগাদ ড্রাইভ ইন সৈকত ( Muzhappilangad Drive-in Beach) 

ছবি-waytoindia.comছবি-waytoindia.com

 

আপনি যদি কেরালা ভ্রমনে যেতে চান তবে আপনার ভ্রমণ স্থানগুলোর তালিকায় এই সমুদ্রসৈকতটিকে অবশ্যই প্রথমদিকে রাখতে হবে। যদি আপনি প্রকৃতির কোলে একটি শান্ত, নিরিবিলি পরিবেশ খুঁজে থাকেন তবে নিঃসন্দেহে এই সমুদ্রসৈকতটি আপনাকে নিরাশ করবে না বরং আপনার চাহিদা খুব ভালভাবেই পূরণ করতে পারবে।

আর আপনি যদি দুঃসাহসিক অভিযান পছন্দ করে থাকেন তাহলেও আপনাকে এই সমুদ্রসৈকতটিকেই বেছে নিতে হবে। আর প্রতি বছর এপ্রিলে সমুদ্রসৈকতটির বার্ষিক উৎসবের সময়টাকে আপনি বেছে নিতে পারেন যেটা আপনার ভ্রমনের আনন্দকে দ্বিগুণ করে তুলবে।