ভুটান কে বলা হয় শান্তির দেশ। প্রতিবেশি এই দেশটি বর্তমানে আমাদের ভ্রমণপিপাসুদের কাছে বেশ জনপ্রিয় ভ্রমণ গন্তব্য হয়ে উঠেছে। চমৎকার পাহাড়ি প্রকৃতি ছাড়াও ভুটানে রয়েছে বহু প্রাচীন সংস্কৃতির নিদর্শন।

পর্যটক ক্রিশ্চিয়ান এল তার ক্যামেরায় তুলে এনেছেন এমনই কিছু ছবি, এতে উঠে এসেছে ভুটানের প্রাচীন স্থাপত্য, প্রকৃতি, প্রতিদিনের জীবন আর সংস্কৃতির নিদর্শন যা আপনাকে ভুটান ভ্রমণে যেতে আগ্রহী করে তুলবে। 

টাইগার মনাস্ট্রি পৃথিবীর মধ্যে সুন্দরতম বৌদ্ধমন্দির

 

 ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন পারো জং ও জাতীয় জাদুঘর। লক্ষ্য করুন, এমনকি বড় ও গুরুত্বপূর্ণ শহর গুলোও সবুজ আর প্রকৃতি দিয়ে পূর্ণ।

 

একজন তরুণ সন্ন্যাসী। এনার মতই, ভুটানের জনগণ সদা হাস্যমুখ।

 

পারোর নিকটেই চৌদ্দশ’ শতকের লোহার সাসপেনশন ব্রীজ।

 

পুনাখা জং এর অভ্যন্তরে চমৎকার কাঠের কারুকাজ। এগুলো তৈরি হয়েছে কোন আধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্য ছাড়াই!

 

পুনাখা জং এর যে বিস্ময়কর সৌন্দর্য্য দেখতে পাচ্ছেন এগুলো ও তৈরি হয়েছে কোন আধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্য ছাড়াই!

 

পুনাখা জং এর প্রধান চত্ত্বর হেটে অতিক্রম করছেন দুজন সন্ন্যাসী।

 

ভুটানের যাযাবর লায়াপ জাতির ক্যাম্পে- বিদেশি পর্যটক দেখে কিছু কৌতূহলী লায়াপ শিশু, আর তার মা ঐতিহ্যবাহী লায়াপ হ্যাট মাথায় দিয়ে হস্তশিল্পের কাজ করছে।

 

credit- Vagabon and Daveএক খামখেয়ালী সন্ন্যাসী ড্রুকপা কুনলে’র শিক্ষার প্রতিক এই ছবি। এরকম ছবি ভুটানের অনেক বাড়ির দেয়ালেই দেখতে পাবেন আপনি।credit- Vagabon and Dave

 

থিম্পু থেকে দেশটির পূবে ভ্রমণ করতে চাইলে আপনাকে পারি দিতে হবে দোচুলা পাস। এই দেশের সর্বোচ্চ এই পাহাড়ি পাসটি ৩১০০ মিটার উঁচু।

 

(সূত্র-unusualtraveler.com)