বাংলার পথে

ষাইট্টার ৫০০ বছরের পুরানো বট গাছ...

বটগাছটি রহস্যেঘেরা। কয়েক বছর আগে গ্রামের কানু মিয়া নামে এক ব্যক্তি এ গাছের ডাল কাটার পর অসুস্থ হয়ে মারা যান। অনেকে বলছেন রাতের আঁধারে গাছটির ডালপালায় কয়েকশ শিশু নাচগান করে

মুহুরী প্রজেক্টের মুগ্ধতায়

মুহুরী প্রজেক্ট দেখতে অনেকটা লেকের মতোই। এখানে পর্যটকদের জন্য বাহারি সব নৌকায় নৌবিহারের সুযোগ রয়েছে। পর্যটকদের অনেককেই নৌকায় করে ঘুরে বেড়াতে দেখলাম।

বন পাহাড়ের বুবারথল

পথের ধারে দেখা মেলে নানা জাতের বুনো ফুলের। হঠাৎ টকটকে লাল এক জাতের ফুলে চোখ আটকে যায়। লতাপাতার ঘন বুনোট ভেদ করে ফুলটি চোখে পড়েছে। সৌরভ জানাল এটা অশোক ফুল।

পানাম নগর

পানাম নগরের আশে পাশে আরো কিছু স্থাপনা আছে যেমন- ছোট সর্দার বাড়ি, ঈশা খাঁর তোরণ, নীলকুঠি, বণিক বসতি, ঠাকুর বাড়ি, পানাম নগর সেতু ইত্যাদি। এখানে আরো আছে চমৎকার একটি লোকশিল্প যাদুঘর।

মাত্র ৩০০ টাকাতেই ঘুরে আসতে পারেন মুড়াপাড়া জমিদার বাড়ি।

এই জমিদার বাড়ীতে রয়েছে কাছারিঘর, অতিথিশালা, নাচঘর, পুজা মণ্ডপ, বৈঠকখানা, ভাঁড়ার সহ বিভিন্নভাগে ভাগ করা অংশ।

বাংলার প্রথম রাজধানী সোনারগাঁ

ঢাকার খুব কাছে পুরাণ ঐতিহ্য ভরপুর একটি স্থান যেখানে গেলে ক্ষনিকের জন্য হলেও প্রশান্তি মিলবে। 

বাংলাদেশের সবচেয়ে নান্দনিক এক মসজিদ

সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে মসজিদের পিছনের সাইডটা। অসাধারণ এক পরিবেশ। হেলি প্যাডের ও ব্যবস্থা আছে।

বিরুপাক্ষ,চন্দ্রনাথ পাহাড়

অনন্য সুন্দর চন্দ্রনাথ পাহাড়েই অবস্থিত চন্দ্রনাথ মন্দির যাহা সনাতন ধর্মালম্বীদের পবিত্র তীর্থ স্থান

ভিমরুলীর ভাসমান পেয়ারা বাজার...

সবচেয়ে আকর্ষনীয় যে জিনিষটি অনেক দিন মনে থাকবে তা হল ফ্লোটিং মার্কেট বা ভাসমান বাজার! পানিপ্রধান অঞ্চল বলে স্বভাবতই এখানকার জীবনযাত্রায় নৌকার ভুমিকা খুব বেশী

গোমতী নদীর পাড়ে!

এটি আঁকাবাঁকা প্রবাহপথে কুমিল্লা শহরের উত্তর প্রান্ত এবং ময়নামতির পূর্ব প্রান্ত অতিক্রম করে দাউদকান্দিতে মেঘনা নদীতে মোট ৯৫ কিমি সর্পিল পথ পাড়ি দিয়ে মিলিত হয়েছে।

কুমিল্লার ঐতিহ্যবাহী ধর্মসাগর

যা কুমিল্লা শহরবাসীদের অন্যতম বিনোদনের জায়গা। এটি আসলে প্রায় ২৩ একরের প্রাচীন দিঘি, যার উত্তর কোণে রয়েছে রাণীর কুঠির, পৌরপার্ক ।

অভিজ্ঞতা-কুকরি মুকরি

১ ঘন্টা ইঞ্জিনের নৌকায় মজা করতে করতে যাওয়ার পর আমরা কুকরির শেষ মাথায় চলে আসলাম। এখন সমুদ্র পারি দিতে হবে( এই সাইডের সমুদ্রে নিচে চর থাকার জন্যে একটু শান্ত। উত্তাল না অনেক)

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

গাবতলী থেকে এস বি লিংকে বালিয়াটি পর্যন্ত ভাড়া ৮০ টাকা এর পর বালিয়াটি থেকে জমিদার বাডি মিনিট তিনেক হাটা পথ অথবা গাবতলী থেকে সাটুরিয়া পর্যন্ত ভাড়া ৭৫ টাকা , ওখান থেকে জমিদার বাড়ি ১০ টাকা অটো

আমের রাজধানী চাঁপাই নবাবগঞ্জ.

কানসাটেই সম্ভবত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় আমের হাট। এখানে যত দূর চোখ যায়, দেখবেন আমের বেচাকেনা। ফজলি, ক্ষীরসাপাত, ল্যাংড়া, গোপালভোগ, বোম্বাই, লক্ষ্মণভোগ, ফনিয়া, হিমসাগরসহ শত শত প্রজাতির আম

আলোচিত পোস্ট


ভ্রমণে যখন নারী একা

ভ্রমণে যখন নারী একা

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭

আজকের ছবি-২৪-০৯-১৭

আজকের ছবি-২৪-০৯-১৭

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭

পাহাড়ে আলিশান ক্যাম্পিং

পাহাড়ে আলিশান ক্যাম্পিং

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

আজকের ছবি-২৩-০৯-১৭

আজকের ছবি-২৩-০৯-১৭

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

আকাশ জোনাকির নীড়ে

আকাশ জোনাকির নীড়ে

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭