বাংলার পথে

ঘুরে আসুন আমাদের রাষ্ট্রপতির জন্মস্থান হাওর অঞ্চল কিশোরগঞ্জ থেকে!(খরচঃ ৭০০-৮০০ টাকার মধ্যে)

যদি শহরের ধুলাবালি থেকে মুক্তি পেতে চান আর প্রাকৃতিক নির্মল বাতাস, স্বচ্ছ আকাশ, নানা রকম পাখির কিচিরমিচির ডাক শুনতে চান তারা ঘুরে আসতে পারেন কিশোরগঞ্জের হাওর থেকে!

১ দিনে ঘুরে দেখুন কুমিল্লার এপার ওপার ! মাত্র ৫০০ টাকায় 

ধর্ম সাগর যাবার পথে দেখতে থাকুন রাতের কুমিল্লা শহর । লাল নীল আলোয় সজ্জিত ধর্ম সাগর পাড়ে কিছুক্ষন বসে থাকার পর আপনার মনে হবে মাতৃ ভাণ্ডারের রস মালাইয়ের কথা ।

ঘুরে আসুন মাত্র ১২০০ টাকায় রাজার হালে ১ দিনের মধ্যে পাহাড়, ঝর্না, ইকো পার্ক,সমুদ্র সৈকত।

৫০ টাকা এক জন করে সহস্রধারা ঝর্না পর্যন্ত নিয়ে যাবে। তারপর হেটে হেটে ব্যাক করবেন। কারন আপনি যদি হেটে হেটে সহস্রধারা পর্যন্ত জান তাহলে আপনার অবস্থা ভয়াবহ খারাপ হয়ে যাবে। কারন আপনাকে পাকা রাস্তা হেটে হেটে কয়েক হাজার ফুট উপরে উঠতে হবে।

ঘুরে আসুন বুদবুদির ছড়া

ছড়ার টলটলে ঠান্ডা পানিতে ; স্বর্গীয় সুখ পাবেন নিশ্চিত ... কিছু কিছু জায়গায় পানিতে হাটু সমান গভীরতা ; ছড়া পথ ধরে পা ডুবিয়ে হেটে হারিয়ে যেতে মন চাইবে গভীর থেকে আরো গভীর অরণ্যে ;

টাঙ্গাইলের মহেড়া জমিদার বাড়ী

মন চাইল তো ঘুম থেকে উঠেই চলে গেলেন জমিদার কালিচরনের বাড়িতে। অন্য জমিদার বাড়ি গুলো সাধারনত যেমন হয় মহেরা তাঁর থেকে আলাদা

কুয়াকাটা থেকে ঘুরে এসে

কুয়াকাটা শহর থেকে বিভিন্ন ট্যুরিস্ট স্পটে যাওয়ার জন্য রয়েছে ভ্যানগাড়ি আর মোটরসাইকেল। শহর থেকে দূরের স্পটে যাওয়ার জন্য মোটরসাইকেলই একমাত্র সম্বল।

বগালেকে মৌচাক!!!

আর এই পাহাড়ের মত নির্জন-দুর্গম-দুর্লভ জায়গায়, এতো মৌচাক! এতো বগালেকে মৌচাক!

জীবনের দৌড়কে থামিয়ে বেরিয়ে পড়লাম আমরা ক'জন

শুভলং ঝর্না, আর্মিদের ক্যাম্প, পাহাড় এবং স্থানীয় বাজার পুরোটা পথই খাল ধরে হাটবেন। চাইলে সামান্য নাস্তা বা ডাবের পানিও পান করতে পারেন বেশ সুন্দর জায়গাটা

ঢাকা-কাপ্তাই-রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি-সাজেক একসাথে সব কিছু

খাগড়াছড়ি থেকে সাজেক যাওয়ার পুরো রাস্তাটা আপনার বুকে কাঁপুনি সৃষ্টি করবে। আঁকাবাঁকা, উঁচুনিচু পাহারি রাস্তা। পাশেই বিশাল খাদ। হঠাত হঠাত এতটাই খাড়া রাস্তা যে মনে হবে উপরে যাওয়া আর সম্ভব না

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে

সমাধি কমপ্লেক্সের মধ্যে রয়েছে পাঠাগার, গবেষণাকেন্দ্র, প্রদর্শনী হল, পাবলিক প্লাজা, প্রশাসনিক ব্লক, মসজিদ, উন্মুক্ত মঞ্চ, স্যুভেনির শপ ও তথ্যকেন্দ্র।

প্রথম প্রেমের পার্বতীপুর...

বারবার চুম্বকের মত আকর্ষণ করতো, রেলওয়ে স্টেশন, ট্রেনের হুইসেল, ইঞ্জিনের হাতল, জিন্নাহ মাঠ, রেল কলোনির এপাড়া-ওপাড়া, বাগান ঘেরা ইটের বাড়ি, চিলাই নদীর অবাক বাঁক, হলদি বাড়ির আবেগি ডাক আরও যে কত কিছু.

কান্তজিউ মন্দির, নয়াবাদ মসজিদ এবং অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চিরায়ত সৌন্দর্য

চারদিক গোধূলির আলোয় রাঙা। অস্তগামী সূর্যের আলোয় ঐতিহাসিক মসজিদটিকে কেমন জানি অপার্থিব লাগছিল। ছোট্ট মসজিদটিতে ইতিহাসের ছোঁয়া আছে বলেই হয়ত এমন অনুভূতির সৃষ্টি হয়েছিল মনে।

ট্যুর বিরিশিরি...!!!(নেত্রকোনা)

যদি BBQ করতে চান তাহলে সেটা হবে অন্য রকম এক অভিজ্ঞতা। নদীর পাড়েই একটি শ্মশানঘাট আছে। তার পাশে নদীর চড়ে BBQ সত্যিই অন্য রকম এক অভিজ্ঞতা।

বৃষ্টি ও কক্সবাজার

রোদ কমে নরম হলে, আবারো চলে যাওয়া যাবে সমুদ্রের একদম কাছে, ঢেউয়ে ভাষা দুরত্তে! উজাড় করেদিন নিজেকে গোধূলির মায়াবীটানে। উপভোগ করুন উত্তাপহীন বীচের, কোমলতা আর বর্ণিল সন্ধার কমনীয়তা! যতক্ষণ খুশি, ততক্ষণ, হেটে-বসে বা ভিজে ভিজে!

মাত্র ১৫০০ টাকায় নেত্রকোনা আর বিরিশিরি এর স্বাদ

মাত্র ১৫০০ টাকায় যারা নেত্রকোনা আর বিরিশিরি এর স্বাদ নিতে চান, তাদের জন্য এই ট্যুর প্ল্যান। আমরা ৬ জনের একটা টিম এই নববর্ষে ঘুরতে গিয়েছিলাম নেত্রকোনা

আলোচিত পোস্ট


শতবর্ষ আগের ময়মনসিংহের পশু-পাখি

শতবর্ষ আগের ময়মনসিংহের পশু-পাখি

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০১৮

গজনীর অবকাশ কেন্দ্র

গজনীর অবকাশ কেন্দ্র

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০১৮

আজকের ছবি-১৭-০২-১৮

আজকের ছবি-১৭-০২-১৮

শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০১৮

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু জলপ্রপাত (পর্ব-২)

পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু জলপ্রপাত (পর্ব-২)

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০১৮

বেসক্যাম্প চকরিয়া! (শেষ পর্ব)

বেসক্যাম্প চকরিয়া! (শেষ পর্ব)

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০১৮