কেরু এ্যান্ড কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেড বাংলাদেশের চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা এলাকায় অবস্থিত একটি ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান। এটি বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান একটি চিনি কল। ৮০ বছর আগে ১৯৩৮ সালে এই প্রতিষ্ঠানটি ব্রিটিশ নাগরিক কেরু ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা করেন। সেইসময় এই প্রতিষ্ঠানের অধীনে একটি চিনি কারখানা, একটি ডিষ্টিলারী ইউনিট এবং একটি ঔষুধ কারখানার যাত্রা শুরু হয়। স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ সরকার এই প্রতিষ্ঠানটিকে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব প্রতিষ্ঠান হিসেবে ঘোষণা করে।

Ashik Sarwar‎Ashik Sarwar‎

এই কোম্পানির মূল পণ্য হচ্ছে আখ থেকে চিনি উৎপাদন করা। আখ থেকে চিনি বের করে নেওয়ার পর যে উপজাত দ্রব্য পাওয়া যায়, যেমন- চিটাগুড়, ব্যাগাস ও প্রেসমাড, তা থেকেও বিভিন্ন পণ্য উৎপাদিত হয়। উল্লেখযোগ্য উৎপাদিত পণ্যগুলো হচ্ছে, দেশি মদ, বিদেশি মদ, ভিনেগার, স্পিরিট ও জৈব সার।

Dhaka TribuneDhaka Tribune

বাংলাদেশের অন্যান্য চিনিকলের মধ্যে একমাত্র কেরু এ্যান্ড কোম্পানিকে লোকসান গুনতে হয় না। এর লাভের প্রায় সম্পূর্ণটাই আসে এখানকার ডিষ্টিলারি ইউনিট থেকে। টানা পাঁচ বছর ষাট কোটি টাকা করে লাভ করছে এই প্রতিষ্ঠানটি।

যেহেতু এটি প্রায় ৮০ বছর আগের প্রতিষ্ঠান তাই এটি একটি ভ্রমণের গন্তব্য হতে পারে। বিশেষ করে তাঁদের জন্য যারা পুরো দেশটি ঘুরে দেখার ব্যাপারে আগ্রহী। কেউ চুয়াডাঙ্গার দর্শনা ভ্রমণে আসলে এটি পরিদর্শন করতে ভুলবেন না। তবে এখানে অনুমতি সাপেক্ষে প্রবেশ করতে পারবেন এবং যেখানে মদ উৎপাদন করা হয় সেই ইউনিট ছাড়া চিনি কলের বাকি ইউনিটগুলোতে প্রবেশ করতে পারবেন। সেইসাথে যারা মদ নিয়ে আগ্রহী তাঁদের জন্য দুঃসংবাদ হল, এখানে মদ উৎপাদিত হলেও বিক্রয় করা হয় না।  

যেভাবে যাবেনঃ ঢাকা থেকে ট্রেন বা বাসে করে দর্শনা। দর্শনা হল্ট থেকে খুব কাছেই, তাই পায়ে হেঁটে বা রিক্সায় যেতে পারবেন।

তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া, আশিক সরওয়ার