প্রানিজগতের সুন্দরতম প্রাণীদের মধ্যে প্রজাপতি অন্যতম। এন্টার্কটিকা বাদে পৃথিবীজুড়ে প্রায় ২৫০০০০ প্রজাতির প্রজাপতি আছে। আর এদের এক একটা প্রজাতি আরেকটা থেকে রং, রূপ ও বৈশিষ্ট্যে একদমই ভিন্ন। আমরা সবাই প্রজাপতি ভালবাসি। প্রজাপতিকে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে গণ্য করা হয়।

আজ আমাদের আয়োজন পৃথিবীর অদ্ভুত ও সুন্দরতম প্রজাপতিগুলো নিয়ে। এসব প্রজাপতি দেখে আপনি বিস্মিত হবেন।

১। স্বচ্ছপাখার প্রজাপতি।

এই প্রজাপতিকে গ্লাসউইং বাটারফ্লাই বলা হয়। অর্থাৎ কাঁচেরপাখাওয়ালা প্রজাপতি। এই প্রজাপতির পাখার মধ্যে শিরা বাদে বাকি অংশ একদম পানির মত স্বচ্ছ। আপনি এর পাখার মধ্য দিয়ে অপর প্রান্তের সবকিছু দেখতে পাবেন। মধ্য আমেরিকা ও মেক্সিকোতে এই প্রজাপতি পাওয়া যায়।

২। শুকনোপাতার পাখাওয়ালা প্রজাপতি।

আপনি সহজে এই প্রজাপতিকে খুঁজে পাবেন না। কারণ এর পাখা দুটো দেখতে একদম গাছের শুকনো পাতার মত। এই প্রজাপতিকে তাই ডেডলিফ বাটারফ্লাই বলা হয়। এই প্রজাপতি ভারত, মাদাগাস্কার, নিউগিনি ও দক্ষিণ এশিয়ার নানা প্রান্তে পাওয়া যায়।

৩। জমজ আট প্রজাপতি।

এই প্রজাপতির পাখায় খুব অবহেলিতভাবে দুটি ইংরেজি আট সংখ্যা আঁকা থাকে। তাই এঁকে নেগলেকটেড এইটিএইট বাটারফ্লাই বলা হয়। এই সুন্দর রঙিন প্রজাপতিটি ব্রাজিলে পাওয়া যায়।

৪। দানব পেঁচা প্রজাপতি।

বিস্ময়কর এই প্রজাপতিটি যখন তার পাখা মেলে ধরে তখন মনে হয় পেঁচার দুটি চোখ চেয়ে আছে। তাই এর এই অদ্ভুত নাম দেয়া হয়েছে ‘জায়ান্ট আউল বাটারফ্লাই’। এই প্রজাপতি মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকা ও মেক্সিকোর রেইন ফরেস্টে পাওয়া যায়। এদের প্রায় ২০ টি প্রজাতি আছে।

৫। কুইন অ্যালেক্সান্ডার বার্ডউইং বাটারফ্লাই।

এটি পৃথিবীর বৃহত্তম প্রজাপতি। এদের পাখা প্রায় ১ ফুট পর্যন্ত প্রশস্ত হয়। এই প্রজাপতি বিষাক্ত ফুল থেকে রস খেয়ে থাকে। তাই এরা বিষাক্ত হয়। কোন শিকারি এদের খেয়ে ফেললে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পাপুয়া নিউ গিনির রেইন ফরেস্টে এদের পাওয়া যায়।

৬। এমারল্ড সোলোটেল প্রজাপতি।

এই অপূর্ব সুন্দর প্রজাপতিটি প্রধানত দক্ষিণ পূর্ব এশিয়াতে পাওয়া যায়। তাছাড়া এর অনেক প্রজাতি ও উপজাতি পৃথিবীর নানা অংশে পাওয়া যায়।

৭। জেব্রা লম্বাপাখার প্রজাপতি।

এই প্রজাপতির পাখা জুড়ে জেব্রার মত দাগকাটা থাকে। তবে এই দাগগুলো হলুদ ও কালো। তাই একে জেব্রা লংউইং বাটারফ্লাই বলা হয়। এই প্রজাপতিটি দক্ষিণ ফ্লোরিডায় পাওয়া যায়।

৮। হোয়াইট মরফো প্রজাপতি।

এই প্রজাপতি প্রধানত ওয়েস্ট ইন্ডিজ, মেক্সিকো ও আমেরিকার রেইন ফরেস্টে পাওয়া যায়। এদের রং কিছুটা অনুজ্জ্বল সাদা রঙের হয়। পাখায় ধূসর রঙের বৃত্ত থাকে। এই পাখা তাদের পরিবেশের সাথে মিশে যেতে সাহায্য করে।

৯। ময়ূর প্যান্সি প্রজাপতি।

এই প্রজাপতিকে পিকক প্যান্সি বাটারফ্লাই বলা হয়। আমরা এদের প্রায় দেখে থাকি। এরা পাখা মেলে ধরলে চোখের মত চারটা বৃত্ত দেখা যায়। এটা প্রায় সর্বতই পাওয়া যায়।

১০। বিস্ময়কর প্রজাপতি।

এই বিস্ময়কর লালচে রঙের প্রজাপতিটি ব্রাজিলে পাওয়া যায়। এদের সম্পর্কে গবেষকদের কাছে খুব বেশী তথ্য নেই। এদের মারিপোসা পরিবারের ধরা হয়। এদের পাখার মাঝে একটা ছেদ থাকে, মনে হয় কেউ যেন ওই অংশ কেটে নিয়েছে।