ওয়াশিংটন, আইডাহো এবং ওরেগন রাজ্যের বেশীরভাগই প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশের সবচেয়ে সুন্দর অঞ্চলে অবস্থিত। বিশ্বাস হচ্ছে না? তাহলে এই ছবিগুলো চেক করে দেখতে পারেন। আমরা প্রশান্ত মহাসগরীয় অঞ্চলের কিছু আকর্ষণীয় ছবি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

প্রসপেক্ট, ওরেগন

ঐতিহাসিক ছোট শহরে আগ্নেয়গিরি লেকের চারপাশে ভ্রমণ করাটা একটা স্বপ্নের মতো মনে হবে। এটি বিশ্বের গভীরতম লেকের মধ্যে একটি, যেখানে সবচেয়ে দর্শনীয় এবং মনোমুগ্ধমকর দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন। রাতে আগনেয়গিরির জ্বালামুখের প্রান্তে দাঁড়িয়ে সুমেরুপ্রভার আভাসও উপভোগ করতে পারবেন।

ওয়ালা ওয়ালা, ওয়াশিংটন

ওয়াশিংটন ভ্রমণে গেলে এই ছোট্ট শহরের গমের বাগানের সবুজ প্রাকৃতিক দৃশ্য এবং ১২০টি আঙ্গুর বাগানের মনোমুগ্ধকর দৃশ্য অবশ্যই উপভোগ করবেন।

প্রসের, ওয়াশিংটন

যাদের ক্যাপাডোসিয়া প্রয়োজন রয়েছে, তাঁরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই জায়গাটিতে একটি উত্তেজনাপূর্ণ জ্বলন্ত বায়বীয় বেলুনে উঠার অভিজ্ঞতা নিতে পারেন। প্রতিবছর সেপ্টেম্বর মাসের বার্ষিক গ্রেট প্রসের বেলুন র‍্যালি আয়োজিত হয়ে থাকে।

বোর্ডম্যান, ওরেগন

কলাম্বিয়া নদী বরাবর অবস্থিত এই শহরটি মূলত আলু ও অন্যান্য ফসলের চাষের জন্য পরিচিত, কিন্তু আমরা মনে করি যে বোর্ডম্যান ট্রি ফার্মটি ৮৪টি আন্তঃরাজ্য বরাবর উঁচু ও সরু গাছের বিস্তৃতির সারিগুলো যে কাউকেই মুগ্ধ করবে।  

এশফোর্ড, ওয়াশিংটন

মাউন্ট রেনইয়ার ন্যাশনাল পার্কের বাইরে মাত্র ছয় মাইল দূরত্বে আশফোর্ডটি সবচেয়ে নিকটতম শহর এবং সবচেয়ে সুন্দর বনভূমি গন্তব্যস্থানের মধ্যে একটি।

ইয়েটস, ওরেগন

এই রহস্যময় শহরটি কেপ Perpetua উপকূলে অবস্থিত এবং ২০ফুট গভীর সমুদ্রের ভূতুড়ে গুহার জন্য বিশেষভাবে পরিচিত।

লিভেনওয়ার্থ, ওয়াশিংটন

এই ব্যাভেরিয়ান থিমযুক্ত শহর, কাঠের তৈরি ঘর, তুষারাবৃত পর্বতমালা এবং একটি নটক্র্যাকার জাদুঘর এবং দেশের সেরা ক্রিস্টমাস উৎসব সব মিলিয়ে যেন একটি স্বপ্নের রাজ্য।

টুইন জলপ্রপাত, আইডাহো

শোশান জলপ্রপাত এবং স্নেক রিভার ক্যানিয়নের প্রবেশপথটি শহরের বেস জাম্পারদের এবং ফটোগ্রাফারদের একটি জনপ্রিয় দর্শনীয় স্থান।

Purewow থেকে অনুদিত।