এই পথ যদি না শেষ হয় তবে কেমন হতো! তুমি বলতো? বিখ্যাত এই গানটি শুনিনি এমন মানুষ মনে হয় খুব কম খুঁজে পাওয়া যাবে। এই গানটি শোনার সময় কি আপনার মনে কখনো প্রশ্ন জেগেছিলো, সারাজীবন হেটে চলা কি সম্ভব? এইধরনের প্রশ্ন মনের মধ্যে জাগাটা খুবই স্বাভাবিক। কারণ একটা মানুষের পক্ষে সারাজীবন হেটে চলা অস্বাভাবিক একটা ব্যাপার।

তবে সারাজীবন হেটে চলা সম্ভব না হলেও অসাধারণ কোন জায়গায় দীর্ঘক্ষণ হেটে বেড়ানো কিন্তু সম্ভব! আর সাথে যদি সেই সময় প্রিয়জন থাকে তাহলে তো সোনায় সোহাগা! নির্জন নিস্তব্ধ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত কোন রাস্তায় যদি একা একাই হেটে বেড়ান তাহলেও কিন্তু দীর্ঘক্ষণ আপনার কোন ক্লান্তি আসবে না। বরং প্রশান্তিই আসবে!

ফাঁপরবাজ আপনাদের সামনে আজ এমন কিছু রাস্তার ছবি ও পরিচয় তুলে ধরছে যেগুলো দেখার সাথে সাথে আপনার একটু সেই রাস্তায় হেটে বেড়াতে ইচ্ছা করবে আর সেই রাস্তাগুলোতে দীর্ঘক্ষণ হাটার পরও আপনার ক্লান্তি আসবে না!

১। হেলারবোস বনে বসন্ত, বেলজিয়াম

 

২। রডোডেনড্রন টানেল, রেইনগ্রস পার্ক, কেনমারে আয়ারল্যান্ড

 

৩। হোয়াইট কারপাথিয়ান্সের শরৎ

 

৪। রডোডেনড্রন লাদেন পাথ, মাউন্ট রজার্স, ভার্জিনিয়া, ইউএসএ

 

৫। শীতের বন্য পথ, চেক রিপাবলিক

 

৬। পেডলি জর্জ, পিক ডিস্ট্রিক, ইউকে

 

৭। স্পেন্সার স্মিথ পার্কে বসন্ত, অন্টরিও, কানাডা

 

৮। ডগ মাউন্টেনে বসন্ত, ওয়াশিংটন, ইউএসএ

 

৯। জাকারান ট্রি অ্যলি

 

১০। কটন ট্রি অ্যলি, তাইওয়ান

 

১১। মাউন্ট রেইনার, ওয়াশিংটন, ইউএসএ

 

১২। উডবার্নে বসন্ত, অরিগন, ইউএসএ

 

১৩। ডার্ক হেডস, আয়ারল্যান্ড

 

১৪। তাইপিং মাউন্টেনের পথ, তাইওয়ান

 

১৫। হিটাচি সীসাইড পার্ক, জাপান

 

১৬। বাভারিয়ার বন্য পথ, জার্মানি

 

১৭। রাশিয়ান বন্য পথ

 

১৮। মিগলিয়ারিনো সান রসোরে পার্ক, পিসা, ইতালি

 

১৯। বাঁশ বাগানের রাস্তা, কিয়োটো, জাপান

 

২০। শরতের রাস্তা

 

২১। সাসেক্সে হালনায়েক উইন্ডমিলে যাওয়ার রাস্তা, ইউকে

 

২২। শরতের রাস্তা, কিয়োটো, জাপান

 

২৩। টানেল অফ লাভ, ইউক্রেন

 

২৪। উইস্টারারি ফ্লাওয়ার টানেল, জাপান

 

২৫। বসন্তে হল্যান্ডের একটি রাস্তা

 

তথ্যসুত্রঃ Boardpanda