বিশ্বের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে অসংখ্য শহর ও নগর। যেগুলোর চমৎকার ও আকর্ষণীয় রুপ বিস্মিত করে আমাদের। ঠিক এইরকমই অনেক শহর ছিল এই পৃথিবীতে। কিন্তু কালের বিবর্তনে হারিয়ে গেছে, যে শহরগুলো সাক্ষী ছিল নানা ইতিহাস ও ঐতিহ্যের। 

প্রাকৃতিক দুর্যোগ, শত্রুদের আক্রমণ ও যুদ্ধের কারণে হারিয়ে গেছে এই শহরগুলো, তবে একেবারেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় নি। কিছু প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষ এখনো তাদের স্মৃতিচিহ্ন ধরে রেখেছে পৃথিবীর বুকে। আজকের আয়োজনে থাকলো ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক হারিয়ে যাওয়া এমনই কিছু শহরের গল্প। চলুন দেখে আসা যাক-

১. পারসেপলিস, ইরানঃ দারুসে প্রতিষ্ঠিত একটি চমৎকার শহর, যা গড়ে তুলতে সময় লেগেছিল শতাব্দীরও অধিক সময়।  আনুমাণিক ৫১৮ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে এই শহর প্রতিষ্ঠিত হয়।

পারসেপলিসপারসেপলিসপারসেপলিস

২. বাগেরহাটের মসজিদ শহরঃ মসজিদের শহর বাগেরহাট মূলত একটি বিলুপ্ত শহর। বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত বাগেরহাট জেলার অন্তর্ভুক্ত বাগেরহাট শহরের একটি অংশ ছিল এই শহরটি। বাগেরহাট খুলনা থেকে ১৫ মাইল দক্ষিণ পূর্ব দিকে এবং ঢাকা থেকে ২০০ মাইল দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত।

বাগেরহাটের মসজিদ শহরবাগেরহাটের মসজিদ শহরবাগেরহাটের মসজিদ শহর

ঐতিহ্যবাহী স্থানগুলোর মধ্যে ষাট গম্বুজ মসজিদ অত্যতম পরিচিত। এগুলো ছাড়াও এই শহরের অন্যান্য আরও বেশ কিছু স্থাপনা মূল শহরের অংশ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে, এগুলোর মধ্যে রয়েছে খান জাহানের সমাধী, সিংগরা মসজিদ, নয় গম্বুজ মসজিদ, সিংগরা মসজিদ ইত্যাদি।

৩. বিজয়নগর, ভারতঃ বর্তমান কর্ণাটক রাজ্যের হাম্পিতে এই শহরের ধ্বংসাবশেষ বর্তমানে একটি বিশ্ব ঐতিহ্য স্থল। মধ্যযুগীয় ইউরোপীয় পর্যটক ডোমিনগো পেজ, ফার্নাও নানস ও নিকোলো ডি কন্টি প্রমুখের রচনা এবং স্থানীয় সাহিত্য থেকে এই সাম্রাজ্যের ইতিহাস সম্পর্কে জানা যায়। বিজয়নগরের শক্তি ও সমৃদ্ধির প্রমাণ মিলেছে পুরাতাত্ত্বিক খননকার্যের মাধ্যমে।

বিজয়নগর, ভারতবিজয়নগর, ভারতবিজয়নগর, ভারত

৪. মহেঞ্জোদারো, পাকিস্তানঃ অধুনা পাকিস্তান রাষ্ট্রের সিন্ধু প্রদেশের লারকানা জেলায় অবস্থিত। ২৬০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ নাগাদ নির্মিত এই শহরটি ছিল বিশ্বের প্রাচীনতম শহরগুলির অন্যতম এবং প্রাচীন মিশর, মেসোপটেমিয়া ও ক্রিটের সভ্যতার সমসাময়িক। এই শহরের পুরাতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ বর্তমানে একটি ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান।

মহেঞ্জোদারো, পাকিস্তানমহেঞ্জোদারো, পাকিস্তানমহেঞ্জোদারো, পাকিস্তান

৫. মেসা ভেরডে, কলোরাডো, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রঃ সপ্তম থেকে চতুর্দশ শতকে আনাসাজি গোত্রের বসবাস ছিল এখানে। ভেরডের জাতীয় উদ্যানের ৬০০ কিলোমিটার খাঁড়া বাঁধের উপর বসবাস ছিল তাদের।

মেসা ভেরডেমেসা ভেরডেমেসা ভেরডে

৬. অ্যানি, তুরস্কঃ ‘দ্য সিটি অব ১০০১ গীর্জা’ নামে পরিচিত এই শহরটি আর্মেনীয় রাজত্বের রাজধানী ছিল।

অ্যানি, তুরস্কঅ্যানি, তুরস্কঅ্যানি, তুরস্ক

৭. থিব্স, মিশরঃ খ্রিস্টপূর্ব ২০৪০ থেকে ১০৭০ পর্যন্ত থিব্স ছিল মিশরের রাজধানী।  বিশ্বের সেরা স্থাপত্যগুলোর মধ্যে লাক্সর মন্দির, কার্নক কমপ্লেক্স, রামেসিসের দ্বিতীয় মন্দির থিব্স-এর অংশ হিসেবে ধরা হয়।

থিব্স, মিশরথিব্স, মিশরথিব্স, মিশর

৮. দ্য গ্রেট জিম্বাবুয়ে, জিম্বাবুয়েঃ প্লেটলে, গোকোমরে মানুষদের দ্বারা নির্মিত এই শহরটি হারারে থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

দ্য গ্রেট জিম্বাবুয়ে, জিম্বাবুয়েদ্য গ্রেট জিম্বাবুয়ে, জিম্বাবুয়েদ্য গ্রেট জিম্বাবুয়ে, জিম্বাবুয়ে

 

সূত্রঃ Travel Trangle.