গাড়িবহুল ব্যস্ত সড়কের উপর থেকে শুরু করে দূর্গম পাহাড়ে, নদীর ওপর বা বন্ধুর রাস্তায় বানানো হয় ‘ফুট ওয়াক ব্রীজ’ অর্থাৎ শুধুমাত্র পায়ে হেটে পার হওয়ার সেতু। এর মধ্যে অনেক সেতুই থাকে নান্দনিক সৌন্দর্য্যের অধিকারী- এই দিকে অবশ্য পাহাড়ের গায়ে গায়ে ঝোলানো সাসপেনশন ব্রীজ গুলোই এগিয়ে আছে।

প্রখ্যাত ম্যাগাজিন সিএনএন তালিকা করেছে বিশ্বের সেরা ১০ টি পদব্রজ সেতুর। চলুন দেখে আসি সেতু গুলো।  

 

১। পিক ওয়াক বাই টিস্যোটঃ

সুইজারল্যান্ডের বারনিস ওবারল্যান্ডে এই সেতু বানানোর উদ্দেশ্য ছিল দুই গ্লেসিয়ার এর মধ্যে সংযোগ স্থাপন।

 

২। সোচি স্কাইব্রীজ

রাশিয়ায় অবস্থিত। দীর্ঘদিন বিশ্বের দীর্ঘতম ঝুলন্ত পদব্রজ সেতু ছিল।

৩। আইগুইল দ্যু মিডি ব্রীজ

ফ্রেঞ্চ আল্পসের দুই চূড়াকে সংযুক্ত কারী এই ব্রীজ ৩৮৪২ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত।

 

৪। টিগবাও হ্যাংগিং ব্রীজ

ফিলিপাইনের এই সেতু মেটাল দিয়ে তৈরি হলেও লতায় জড়ানো থাকায় তা প্রাকৃতিক মনে হয় দেখে।

৫। তামান নাগারা ন্যশনাল পার্ক ব্রীজ

৫৩০ মিটার লম্বা এই সেতু মালয়েশিয়ার দীর্ঘতম সাসপেনশন ব্রীজ।

৬। ক্যাপিলানো সাসপেনশন ব্রীজ

ভ্যাংকুভার এর কাপিলানো নদীর উপরে অবস্থিত এই সেতু দেখতে বছরে ৭০০০০০ এর ও বেশি পর্যটক ভিড় জমায়!

৭। হ্যাংগিং ব্রীজ অভ ঘাসা

এটি নেপালের অন্নপূর্ণা সার্কিট এ অবস্থিত।

৮। ট্রিফট ব্রীজ

সুইজারল্যান্ডেরেই সেতুতে পৌছানোর একমাত্র উপায় হল ক্যাবল কার।

 

৯। এল ক্যামিনিটো ডেল রে

হাইড্রোইলেকট্রিক পাওয়ার প্লান্টের শ্রমিক দের যাতায়াতের জন্য বানানো হলেও, এই সেতু খুব দ্রুত পর্যটন আকর্ষণ হিসেবে জনপ্রিয়তা লাভ করে।

 

১০। দ্যা মেরিনব্রুক

কিং ম্যাক্সিমিলিয়ান টু এর স্ত্রীর নামে তৈরি এই সেতু জার্মানে অবস্থিত।

ছবি ও তথ্যঃ CNN