আজ ২৩ এপ্রিল ২০১৮ শুরু হয়েছে ঢাকা ও কাঠমান্ডুর মধ্যে পরীক্ষামূলক বাস চলাচল (ট্রায়াল রান)। সকাল সাড়ে ৯টায় ঢাকার কল্যাণপুর থেকে নেপালের উদ্দেশে ছেড়ে যায় শ্যামলী পরিবহনের দুটি বাস। ঢাকা থেকে কাঠমান্ডু পৌঁছাতে মোট ১ হাজার ১০৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সড়কপথ পাড়ি দেবে বাসদুটি। 

বাংলাদেশ-ভুটান-ভারত-নেপাল মোটর ভেহিকল এগ্রিমেন্টের (বিবিআইএন এমভিএ) আওতায় এ সেবা চালু হচ্ছে।

পরীক্ষামূলক যাত্রায় শ্যামলী পরিবহনের দুটি বাস যাবে। ঢাকা থেকে যাত্রা করে পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা হয়ে ভারতের শিলিগুঁড়ি যাবে বাস, সেখান থেকে নেপালের কাকরভিটা হয়ে কাঠমান্ডু পৌঁছাবে।

 Buses & Couches

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের যুগ্ম-সচিব চন্দন কুমার দে বিবিসিকে বলেছেন "এবার বিভিন্ন স্পটে থেমে থেমে যাবো। এক হাজার কিলোমিটার সড়ক। তবে এবার আমরা বুঝবো যে কেমন সময় লাগবে।" 

তিনি আরো জানান, এই পরীক্ষামূলক যাত্রার পরই ভুটান, বাংলাদেশ, নেপাল ও ভারতের মধ্যে একটি চুক্তি হওয়ার কথা রয়েছে। ওই চুক্তি হয়ে গেলেই আমরা স্থায়ীভাবে চালুর উদ্যোগ নিবো। 

 Buses & Couches

এই বাস কবে থেকে নিয়মিত যাত্রী পরিবহণ করবে এমন প্রশ্নের উত্তরে  বিআরটিসি চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ ভূঁইয়া বলেন, "আমরা আশা করছি আগামী জুন নাগাদ ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে যাত্রী পরিবহন শুরু করা সম্ভব হবে। এজন্য একটি বিবিআইএনভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে একটি চুক্তি করতে হবে। ট্রায়াল রান-পরবর্তী বৈঠকে এ ধরনের কোনো চুক্তি হচ্ছে না। আমরা চেষ্টা করছি যত দ্রুত সম্ভব চুক্তিটি করে ফেলতে।"