অ্যাডভেঞ্চার

বিশ্বজুড়ে কিংবদন্তীর ২০টি ট্রেইল – ১

পুরনো একই একঘেয়ে ট্রেইল নিয়ে ক্লান্ত? এবার তাহলে নিজের চিরচেনা আরামদায়ক এলাকার বাইরে যান, হতে পারে তা আপনার দেশেই।  

সহস্রধারায় ক্যাম্পিং

এদের তেমন কোন সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় উনারাই ঠিক মতো বুঝে উঠতে পারেন না উনাদের কি করা উচিত আর কি করা উচিত না।

ঘুরে আসলাম তিনাপ সাইতার

তিনাপ সাইতার প্রথম দেখে কিছু সময় হাঁ করে তাঁকিয়ে ছিলাম। অদ্ভুত তার রুপ। তিনাপ সাইতার ছেড়ে আসতে ইচ্ছা করছিল না।

অবাক করা সব ঝর্নার গল্প(পর্ব ২)

ট্রেকিং পছন্দ করেন? পাশাপাশি ঝর্নার প্রতি দূর্বলতা আছে? কম সময়ে মাত্র ১ দিনে এমন কোথাও ঘুরে আসতে চান?

অবাক করা সব ঝর্নার গল্প(পর্ব ১)

কোথাও কোথাও খাড়া পাহাড় আর ঠিক তার মাঝ দিয়েই অসাধারণ এক ঝিরিপথ। শুনলেই মনের মধ্যে কেমন একটা রোমাঞ্চকর অনুভূতি জাগে।

অপার্থিব আমিয়াখুম

থুইসাপাড়া পৌঁছাতে রাত হয়ে যায় সাধারণত। সবচেয়ে বড় কথা আমিয়াখুম ট্যুরে আপনি রাতে ট্রেকিং করার অদ্ভুত অনুভূতি পাবেন।

জীবনের প্রথম তাবুতে ক্যাম্পিং করার অভিজ্ঞতা

ঢাকা থেকে ঢাকা প্রতিজন খরচ হয় ১৫০০'র মতো..

চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গল।।  দুই দিনের ট্যুর।

সকালের মিষ্টি আলোয় চা বাগানে ঘুরাঘুরি করা আর চা শ্রমিকদের তিন কুড়ি চা পাতা সংগ্রহ করা দেখাটা ছিল এক কথায় অসাধারণ।

আর এগিয়েছ কি মরেছ

ওপর থেকে দেখে আমরা মোটেই বুঝিনি কত ঠুনকো আর ভঙ্গুর এই ওভার-হ্যাং। না বুঝে কিছু আগে এর প্রায় শেষ মাথায় গিয়ে আমি দাঁড়িয়েছিলাম। এখন সে স্থানটি দেখে শরীরে শীতল-ঘাম বয়ে গেল;

কমলদহ ঝর্ণা, সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম।

এই ট্রেইলে ছোটবড় মিলিয়ে ৭-৮ টা ঝর্ণা রয়েছে। শুধু তাইনা ক্যাসকেড রয়েছে আনুমানিক ১৪-১৫ টার মতো

প্লিজ আপনি পাহাড় ও  ঝর্ণায় যাবেন না

নাপিকাটাকুমের ওপরে রয়েছে আরেকটি জলপ্রপাত, যার নাম ছোট নাপিকাটাকুম। সেখান থেকে কলকল ছলছল করে পানি আসছে, উপচে পড়ছে বড় নাপিকাটাকুমে।

সীতাকুন্ডের সহজতম ট্রেইল

লেক এর একদম কাছেই বুদবুদকুণ্ড আর পুরানো মন্দির। সহস্রধারা লেক এর বামপাশের পথ ধরে সামনে এগোলে সহস্রধারা- ২ ঝর্না পাওয়া যাবে।

হগলতে আইজ দইরায় ডুইবা মরলাম

কুল হতে দুরত্ব যত বাড়ছে, ঝড় ততই প্রবল আর সাগর উত্তাল হচ্ছে। বাঁচতে হলে কূলে ফিরতে হবে; কিন্তু বোট ঘোরাবার উপায় নেই, ঘোরাতে গেলেই বাতাসের ধাক্কায় বোট শুয়ে পড়ে।

রাইক্ষাং লেক, পুকুরপাড়া, রাঙ্গামাটি

বান্দরবান এর বগালেক থেকে টানা ১৭ ঘণ্টা ট্র্যাকিং করে পৌছুতে হয়েছিল এই ভূস্বর্গে। অবিস্মরণীয় সেই ট্র্যাকিং এর কথা কোনদিনই ভোলা সম্ভব নয়। 

ঝরঝরি ট্রেইল, পন্থিছিলা ,সীতাকুন্ড

মূর্তি ঝর্নার খুব কাছে না গেলে রাস্তাটা দেখা যাবে না। মূর্তি ঝর্নার মাঝখান দিয়ে উপরে উঠলেই পাওয়া যাবে আরো একটা সুন্দর ঝর্না এবং ক্যাসকেড।

আলোচিত পোস্ট


ঢাকার মগারা...!(তাজমহল ভ্রমণ)

ঢাকার মগারা...!(তাজমহল ভ্রমণ)

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৭

মরক্কোতে ভুরিভোজ

মরক্কোতে ভুরিভোজ

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৭

আজকের ছবি-২৩-১১-১৭

আজকের ছবি-২৩-১১-১৭

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৭