অভিজ্ঞতা

ছোট্ট একটি পাখি

অতি সামান্যই বোধহয় দৃশ্যটি, তবু হঠাৎ করে কয়েক পলের জন্যে তা স্বর্গীয় মনে হল। এই চিত্র আমার প্রতিদিনকার চিরচেনা পৃথিবীর থেকে কিছুটা হলেও ভিন্ন।

221B, বেকার স্ট্রিট

 সেকেন্ড এ্যাংলো আফগান যুদ্ধ থেকে ফেরা হোমসের গোয়েন্দাগিরির পট তৈরি হয়েছিল ১৮৮১ সালে কিন্তু এই ২০১৭ সালেও সেই নিখুঁত গল্প গাঁথুনি এতোটা হৃদয়গ্রাহী রয়েছে যা কল্পনাতীত।

উত্তর-পূর্ব ভারতের ৪ রাজ্য ও হর্নবিল উৎসব ২য় পর্ব

মনেহলো আফ্রিকার কোনো জীপ সাফারিতে আছি। এক্ষুনি দূরের কোনো ঘাসের ঝোপ থেকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে পড়বে সিংহ, সাথে গোটা তিনেক শাবক। পুরো যাত্রাপথ দারুণ উপভোগ করছিলাম।

ট্যুর দ্য সীতাকুন্ড

দূর থেকে পাহাড়ের উপরে কমলা রঙের এক মন্দির দেখা যায় ও টাই নাকি চন্দ্রনাথ মন্দির । যতো কাছে যাই ততো মুগ্ধ হই । নিজেকে ততো ক্ষুদ্র মনে হতে থাকে এই জগত সংসারে । পাহাড়ের বিশালতা বর্ণনাতীত ।

উত্তর-পূর্ব ভারতের ৪ রাজ্য ও হর্নবিল উৎসব ১ম পর্ব

নাগাল্যান্ড নিয়ে বহু ঘটনা শুনতাম, মিথের মতো। এখানকার আদিবাসীরা নাগাযোদ্ধা হিসেবে অনেক আলোচিত। তারা যুদ্ধে জিতলে প্রতিপক্ষের মাথা কেটে নেয়। এইসব যোদ্ধাদের বলে ‘হেড হান্টার’ বা মস্তক শিকারী

চন্দ্রালোকে চন্দ্রাহত

চাঁদের তো আলো হয় না, হয় কিরণ। ঠিক তেমন চন্দ্রালোক মনে হয় চাঁদে গেলে তবেই বলে যায়, তবে কিনা সেই কয় দিন টাঙ্গুয়ার হাওড়ই পরিণত হয়েছিল এক অপূর্ব চন্দ্রালোকে, চাঁদের দেশে। তাই ভালোবেসে 'চন্দ্রালোকে চন্দ্রাহত' নামই রাখলাম।

অবলোকিত ঈশ্বরের মুখোমুখি

পর্যটকদের কাছে প্রধান আকর্ষণ থাকে মূল মন্দির কমপ্লেক্স, দানবাকৃতির প্রাচীন গাছের মন্দির এবং এই অবলোকিত ঈশ্বরের মেলা, ব্যেয়ন

মালয়েশিয়া ভ্রমন পরিকল্পনা

মালয়েশিয়া একটি পর্যটকবান্ধব, নিরাপদ ও পর্যটনসমৃদ্ধ দেশ। দেশটি বেড়িয়ে আসতে পারবেন অনায়াসে তবে বাংলাদেশী টুরিস্টদের জন্য শুধু পশ্চিম মালয়েশিয়া বেড়ানোর অনুমতি দেয়া হয়। কোথায় কোথায় যাবেন তা ঠিক করুন, কতদিন থাকবেন প্লান করুন, একবার দেশটিতে ঢুকলে ৩০ দিন থাকতে পারবেন।

কী করে ভ্রমণ করবেন ?

হৈ মিয়াঁ, এত এনার্জি, সময় আর টাকা আসে কোথা থেকে? অনেক সময়ই ভেবেছি কোন এক অবসরে গুছিয়ে লিখব এই নিয়ে, কিন্তু সেই অবসর আর মিলে না, ঘুরতে গেলে সেখানে ব্যস্ততা আরও বেশী!

একজন সমুদ্র নায়কের সাথে কিছু কথা

আর্থার সি ক্লার্ক শ্রীলংকায় এসে বছরের পর বছর জাহাজে থাকতেন। সমুদ্রে ডুব সাঁতার দিতে ভালোবাসতেন। আমি ভাগ্যবান, যে সুইমিং ক্লাবে আমি প্রশিক্ষণ নিতাম সেখানে তিনিও আসতেন।

হেরোডটাসের সঙ্গে ভ্রমণ

কি এক অজানা কারণে মিশর যেয়ে অন্য সবার মত নীল নদ দর্শনে ও এর রহস্যানুসন্ধানে নিজেকে ন্যস্ত না রেখে শিশুর কৌতূহলী চোখ দিয়ে পর্যবেক্ষণ করতে থাকেন সাধারন মিশরীয়দের জীবন, কামার- কুমোর- তাতির প্রতিদিনকার কর্মকাণ্ড।

আলোচিত পোস্ট


বজ্রনিনাদী জলরাশির ইতিকথা

বজ্রনিনাদী জলরাশির ইতিকথা

শনিবার, জানুয়ারী ১৯, ২০১৯

লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

লোহিত খাঁড়ি আর কৃষ্ণ নদীর গল্প (পর্ব-২)

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৭, ২০১৯

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

জিপলাইনে দুহাজার ফিট

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৩, ২০১৯