ঢাকা থেকে নেপালের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার একটি উড়োজাহাজ কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত হয়েছে। আজ সোমবার কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে বাংলাদেশি সময় তিনটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইনস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

দুপুর ১২টা ৫১ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৭১ জন আরোহী নিয়ে এটি ছেড়ে যায়। নেপালে পৌঁছানোর পর স্থানীয় সময় ২টা ২০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৩টা ৫ মিনিট) এটি বিধ্বস্ত হয়। তবে প্রাথমিকভাবে বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানা যায়নি।

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ধারণা করছে, অবতরণের সময় যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব সুরেশ আচার্য এর সূত্রে জানা গেছে এ পর্যন্ত ১৭ জন যাত্রীকে উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুর বলেন, অবতরণের সময় উড়োজাহাজটিতে আগুন ধরে যায়। পরে বিমানটি পাশের একটি ফুটবল মাঠে গিয়ে পড়ে।আরো জানা  গেছে, ৭১ জন আরোহীর মধ্যে ৬৭ জন যাত্রী রয়েছেন।যারমধ্যে ৩৪ জন বাংলাদেশি ও ৩৩ জন নেপালি যাত্রী। ১৭ জন যাত্রীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।ধারণা করা হচ্ছে অবতরণের সময়ই উড়োজাহাজটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এ অবস্থায় উড়োজাহাজটি অবতরণের চেষ্টা করে। উড়োজাহাজটিকে বিমানবন্দরের দক্ষিণ দিক থেকে অবতরণের জন্য বলা হলেও উত্তর দিকে অবতরণ করে।

 এই অস্বাভাবিক অবতরণের প্রকৃত কারণ এখন পর্যন্ত  জানা যায়নি।