মনে করেন আপনার একার পক্ষে ঘোরাঘুরি সম্ভব না? আবার ভাবুন। ঘোরাঘুরি খুব ব্যয়বহুল হতে হবে তা কিন্তু না। যখন পৃথিবীর সব আমি দেখতে চাই তা কিন্তু সম্ভব, বিভিন্ন ভাবে আমি শিখেছি কিভাবে একেকটা পয়সা কাজে লাগাতে হয়। কিছু বাজেট ট্রিক্স কাজে লাগিয়ে আপনিও দেখে ফেলতে পারেন পুরো বিশ্ব।

জায়গা বাছাইয়ে সাবধানতাঃ

ভ্রমণের স্থানই সবকিছুই। আট-দশ হাজার টাকার আপনি ফ্রান্সে একদিনও হয়ত অবস্থান করতে পারবেন না কিন্তু দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার যেকোনো দেশে তা দিয়ে ৪-৫ দিন অনায়সে কাটিয়ে দিতে পারবেন আপনি অবশ্যই যাতায়াত, থাকা খাওয়া এবং আপনার কর্মকান্ডের খরচের দিকে মনোযোগ দিবেন।

জায়গা বাছাইজায়গা বাছাই

সেচ্ছাসেবকঃ

যদি সুযোগ থাকে সেচ্ছাসেবক হয়ে যান, থাকা খাওয়া বিশাল একটা খরচ, যদি তা ফ্রিতে হয় তবে তা কাজে লাগাবেন না কেন? এটা শুধু আপনার টাকা বাঁচাবে না, আপনাকে দেখে নানা অভিজ্ঞতা।

সেচ্ছাসেবকসেচ্ছাসেবক

আগে ভাগে পরিকল্পনাঃ

প্লেন ভাড়া সময় অনুযায়ী বিশাল পার্থক্যের হতে পারে, তাই কেন আপনি সেরা মূল্যটির জন্য অপেক্ষা করবেন না?

প্লেন ভাড়া সংক্রান্ত নানা ওয়েবসাইট থেকে আপনি যাচাই-বাছাই করে নিতে পারেন।

পরিকল্পনাপরিকল্পনা

বিকল্প পরিবহনঃ

যাওয়ার আগে বিকল্প পরিবহনের কাজ মাথার রাখুন। সবখানে ট্যাক্সিতে করে যাওয়া আসা করা আপনার খরচ অনেক বাড়িয়ে দিবে আপনি কেন চাইবেন না গণপরিবহনে ভ্রমণ  করে খরচ কমিয়ে আনতে?

বিকল্প পরিবহনেবিকল্প পরিবহনে

সস্তায় ঘুমঃ
 হোটেল রুমের বাইরে কোথাও থাকার কথা ভাবুন। একটি বিনামুল্যে থাকার মত সোফা জোগাড় খুঁজে নিন, কিংবা স্থানীয় কোন হোস্টেল খোঁজ নিন কিংবা কারো বাসায়। নানা রকম সুযোগ আছে নিজের থাকায় খরচ কমানোর জন্য, খোলা মনে খুঁজুন নিজের জন্য সেরাটা বেছে নিন।

সস্তায় ঘুমসস্তায় ঘুম

ছাত্রদের জন্য ডিসকাউন্ট খুঁজুনঃ

ছাত্রদের পাস সেরা একটি জিনিস। আপনি জানেন কি? বিশ্বের ১৩৩ টি দেশের ১,২৫,০০০ স্থানে আপনি ডিসকাউন্ট পাবেন।

ডিসকাউন্ট খুঁজুনডিসকাউন্ট খুঁজুন

যাত্রাবিরতিতে ভ্রমণঃ

মাঝে মাঝে বিমান ভ্রমণে যাত্রা বিরতিতে বিমানবন্দরে অনেকটা সময় বসে থাকতে হয়। ওই সময়টা চাইলেই আশেপাশে ঘুরে আসতে পারেন, অনেক এয়ারলাইন্স আছে যারা নিজস্ব পরিবহন দিয়ে এই সুবিধা দেয়।

কার্স্টেন এর ব্লগ থেকে অনূদিত।